নলছিটির আমিরাবাদে ইউপি চেয়ারম্যানের শেল্টারে যাত্রী ছাউনী দখল করে গরুর মাংসের দোকান।

0

স্টাফ রিপোর্টার।।ঝালকাঠি-বরিশাল সড়কের আমিরাবাদ নামক স্থানে যাত্রী নয়, গরুর মাংসের ব্যবসায়ী লালু দখল করে রেখেছে যাত্রী ছাউনী। এ যাত্রী ছাউনীটি রাস্তার পাশে হওয়ায় যাত্রীদের আনাগোনা এখানে অনেকটাই বেশি। কিন্তু এ যাত্রী ছাউনীটি দখল করে রেখেছে লালু । আর মাংসের দোকানের বর্জ্য ফেলে যাত্রীদের বসার অনুপযোগী করে রেখেছে পুরো যাত্রী ছাউনীটি। অনেকেই যাত্রীদের বসার জায়গায় মোটরসাইকেল ও বাইসাইকেল রেখে প্রায় পুরো স্থান দখল করে রেখেছে যাত্রী ছাউনীর। এক যাত্রী ছাউনিতে দূরপাল্লার সকল যানবাহন থামাতে, কিন্তু এখন থামেনা সে কারণেই সবসময় যাত্রীরা পাশের কালভার্টের উপর গাড়ীতে জন্য অপেক্ষা করে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক যাত্রী বলেন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনামুল হক শাহীনের শেল্টারে যাত্রী ছাউনী মাংস ব্যাবসায়ী লালু ভাইয়ের দখলে, আর সে প্রভাবশালী হওয়ায় সাধারণ মানুষ তাকে কিছু বলতেও পারছে না। এ বিষয়ে অভিযুক্ত লালু মুঠোফোনে জানান, আমি এলাকার চেয়ারম্যান শাহীন ভাইয়ের খুব কাছের লোক সে আমাকে এখানে ব্যাবসা করতে বলছে, আপনি লিখতে পারেন তবে আমি আমার ব্যাবসা চালিয়ে যাব। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান এনামুল হক শাহীনের মুঠোফোন একাধিকবার যোগাযোগ চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Share.

Leave A Reply