বঙ্গবন্ধুর সর্ববৃহৎ ভাস্কর্য উদ্বোধন

0

চট্টগ্রামে নেভাল একাডেমিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আবক্ষ প্রতিকৃতি ভাস্কর্য ও বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার সকাল সোয়া ১১টার দিকে এই কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন তিনি। এর আগে সকাল পৌনে ১১টায় প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী একটি হেলিকপ্টার নৌবাহিনীর ঈশা খাঁ ঘাঁটিতে অবতরণ করেন। সেখান থেকে ১১টার দিকে মঞ্চে আসেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন। ২০১০ সালের ২৯ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আধুনিক এই কমপ্লেক্সটি নৌবাহিনী নির্মাণ করেছে ভাসমান জাহাজের আদলে। কমপ্লেক্সটি ১৬টি পৃথক ভবন ও অবকাঠামোর সমন্বয়ে নির্মিত। এতে রয়েছে একাডেমিক ভবন, ট্রেনিং উইং, ওয়ার্ডরুম, প্যারেড গ্রাউন্ড, সুইমিং পুল, বোট পুল ও বাসস্থানসহ অন্যান্য সুবিধাদি। এছাড়াও জাতির পিতার স্মৃতিকে চির অম্লান করে রাখতে বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে নির্মাণ করা হয়েছে ১৮ ফুট উঁচু ভাস্কর্য যা সমতল থেকে ২৩ ফুট উঁচুতে আছে। ব্রোঞ্জের তৈরি এই ভাস্কর্যের ওজন প্রায় ১৮ মেট্রিক টন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আবক্ষ প্রতিকৃতিকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ ভাস্কর্য বলা হচ্ছে।
আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ নিশ্চিত করতে এতে সংযুক্ত করা হয়েছে সীম্যানশিপ, এন্টি সাবমেরিন, গানারি ও কমিউনিকেশন মডেল রুম, চার্ট রুম, সুপরিসর লাইব্রেরি, কম্পিউটার ও ল্যাংগুয়েজ ল্যাব এবং আধুনিক অডিটোরিয়াম। এছাড়া বিজ্ঞান ও কারিগরি প্রযুক্তিবিষয়ক প্রশিক্ষণের জন্য রয়েছে সাতটি বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞানাগার।
বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের উদ্বোধনের পর নৌবাহিনীর বিভিন্ন যুদ্ধজাহাজ রক্ষণাবেক্ষণের কেন্দ্রবিন্দু বিএন ডকইয়ার্ডকে ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ট প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী। পরে সেখান থেকে পটিয়ায় একটি জনসভায় যোগ দেবেন।
মানবকণ্ঠ/এসএস

Share.

Leave A Reply