বন্ধ হচ্ছে আমেরিকায় যাওয়া ডিবি লটারি

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক★  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ডিবি লটারির বদলে শুধু মেধার ভিত্তিতে অভিবাসী নেবে যুক্তরাষ্ট্র। রোববার (১৪ জানুয়ারি) এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, “প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমি চাই আমেরিকাকে যারা আবারও শক্তিশালী ও মহান করতে পারবেন শুধু তারাই আমাদের দেশে আসবেন। লোকজন মেধার ভিত্তিতে এখানে আসবেন, আর লটারি নয়! সবার আগে আমেরিকা।” অপর আরেক এক টুইট বার্তায় ওবামা প্রশাসনের বহুল আলোচিত ড্রিমার কর্মসূচি বা ‘ডেফারড অ্যাকশন ফর চিলড্রেন অ্যারাইভাল’ (ডিএসিএ) নিয়ে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি বলেন, “এটি ‘সম্ভবত মৃত’। কারণ ডেমোক্র্যাটরা আসলে এটা চায় না, তারা শুধু এ নিয়ে বকবক করতে চায়। তারা আমাদের সেনাবাহিনীদের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ অন্য খাতে নিয়ে যেতে যায়।” এর আগে ট্রাম্প ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে নির্বাহী আদেশে ড্রিমার বিল বাতিলের ঘোষণা দেন। ডাকা বা ড্রিমার নামে পরিচিত এই কর্মসূচি বাতিলের নির্বাচনী অঙ্গীকারও ছিল তার। বিলটি বাতিলের ঘোষণা দেওয়ার পর বিষয়টির আইনি সমাধান খুঁজে বের করতে মার্কিন কংগ্রেসকে ছয় মাসের সময় বেঁধে দেন ট্রাম্প। ২০১৮ সালের ৫ মার্চ ওই ছয় মাসের সময়সীমা উত্তীর্ণ হবে। ড্রিমার বিল নিয়ে এমন ডামাডোলের প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে নির্বাসনের হুমকিতে রয়েছেন দেশটিতে বসবাসরত হাজার হাজার তরুণ অভিবাসী। ওই কর্মসূচির আওতায় যারা শৈশবে অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছেন তাদের দেশ থেকে বিতাড়িত না করার পদক্ষেপ নিয়েছিল ওবামা প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত প্রায় সাত লাখ অভিবাসী শিশু অবস্থায় অবৈধভাবে দেশটিতে প্রবেশ করে। ওবামা প্রশাসন তাদের যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস ও বৈধভাবে কাজ করার সুযোগ দিয়েছিল। কিন্তু  ট্রাম্প প্রশাসনের ওই কর্মসূচি বাতিলের সিদ্ধান্তের ফলে এই মানুষেরা এখন অনিশ্চিত ভবিষ্যতের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন।

Share.

Leave A Reply